৯নং ওয়ার্ড কেন্দ্রে সেবার নামে রোগী রেফার্ড

৯নং ওয়ার্ড কেন্দ্রে সেবার নামে রোগী রেফার্ড

মোঃ নাজমুল হাসান
মহানগরের ৯নং ওয়ার্ড কেন্দ্রে প্রদর্শিত সেবা বোর্ডের সকল সেবা সঠিকভাবে দেওয়া হয় না। সেবা বোর্ড দেখে কোন রোগী আসলে তাদেরকে টাকার বিনিময়ে রোগের প্রাথমিক চিকিৎসা দেওয়া হয়। পরবর্তীতে অন্য কেন্দ্রে রেফার্ড করা হয়।
জানা গেছে, মহানগরের ৯নং ওয়ার্ড নগর স্বাস্থ্যকেন্দ্রটিতে সরকারি প্রকল্পের কার্যক্রম পরিচালিত হয়। প্রকল্পটি চুক্তির ভিত্তিতে খুলনা মুক্তি সেবা সংস্থা (কেএমএসএস) পরিচালনা করে। কেন্দ্রটিতে দৈনিক গড়ে ৫০-৬০ জন রোগী চিকিৎসা সেবা নিতে আসে। ১৫-২০ জন গর্ভবতী রোগীও থাকে। তাদের গর্ভধারণের সময় থেকে উর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষের নির্দেশ অনুযায়ী ৭ মাস সেবা দিয়ে থাকে। এখানে আগত হতদরিদ্র অসহায় রোগীদের জন্য রয়েছে রেজিস্ট্রেশন ফি। আর ডাক্তার দেখানোর জন্য প্রতিবার ৪০ টাকা করে গুণতে হয়। ক্লিনিকের বাইরের দেওয়ালে বিভিন্ন রোগের চিকিৎসা সেবা এবং পরীক্ষা নিরীক্ষার কথা উল্লেখ আছে। গর্ভবতীদের ডেলিভারীর জন্য দুটি সেকশনের কথা বলা আছে। যে কোন রোগী দেখলেই মনে হবে সকল সেবা এখানে আছে। সকল রোগের পরীক্ষা নিরীক্ষা এখানে করা হয় না। এমনকি তাদেরকে চিকিৎসা সেবা অন্য কেন্দ্রে রেফার্ড করা হয়। এখানে সকল রোগীর সেবা প্রদানের জন্য রয়েছে একজন এমবিবিএস ডাক্তার। ক্লিনিকের কাউন্সিলর সাবিনা ইয়াসমিন জানান, সেবা বোর্ডে প্রদর্শিত সকল সেবা এখানে দেওয়া হয়। তবে সেটা প্রাথমিকভাবে। বাইরের দেওয়ালে লেখা সেবাগুলো সম্পর্কে তিনি বলেন, এ সেবাগুলো আমাদের অন্য কেন্দ্রে ভালোভাবে দেওয়া হয়। এজন্য আমাদের এখানে লেখা আছে। তিনি বলেন, এটা আমাদের প্রকল্প কর্মকর্তাদের নির্দেশে লেখা হয়েছে। ক্লিনিকের ম্যানেজার ও মেডিকেল অফিসার ডাঃ সৌরভ রেজা বলেন, এখানে সকল রোগের চিকিৎসা দেওয়া হয়। আর না পারলে অন্য কেন্দ্রে পাঠিয়ে দেওয়া হয়। খুলনা সিটি কর্পোরেশনের (কেসিসি) প্রধান স্বাস্থ্য কর্মকর্তা ডাঃ এ কে এম আব্দুল্লাহ বলেন, সাধারণত নগর স্বাস্থ্যকেন্দ্রগুলোতে প্রাথমিক সেবা দিয়ে নগর মাতৃসদন কেন্দ্রে রেফার্ড করে থাকে।

SHARE THIS NEWS

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*

Scroll To Top