এশিয়া কাপের দ্বিতীয় রাউন্ড তামিমের ভাবনায়

এশিয়া কাপের দ্বিতীয় রাউন্ড তামিমের ভাবনায়

স্পোর্টস ডেস্ক : সামনেই এশিয়া কাপ। ক্রিকেটাররা ঈদের ছুটিতে বিশ্রামে থাকলেও মানসিকভাবে নিজেদের প্রস্তুত করে নিচ্ছেন এই অবসর সময়ে। বাংলাদেশ ক্রিকেটের সেরা ওপেনার তামিম ইকবাল খানও এশিয়া কাপের চিন্তাতেই সময় পার করছেন।
চলতি বছরের সেপ্টেম্বরের ১৫ থেকে ২৮ সংযুক্ত আরব আমিরাতে বসতে যাচ্ছে এবারের এশিয়া কাপের আসর। নিজের পারফরম্যান্সের পাশাপাশি দল নিয়েও ভাবছেন ক্রিকেটের তিন ফরম্যাটে বাংলাদেশের সর্বোচ্চ রানের মালিক তামিম। ক্রিকেট বিষয়ক ওয়েবসাইট স্পোর্টসকেডাকে তামিম জানান, সেরা চারে ওঠা প্রথম লক্ষ্য বাংলাদেশ দলের এরপর বাকি টুর্নামেন্ট নিয়ে ভাববে দল।
তামিম বলেন, ‘আগে আমাদের অবশ্যই এশিয়া কাপের দ্বিতীয় রাউন্ডে উঠতে হবে। এটাই আমাদের প্রাথমিক লক্ষ্য এই টুর্নামেন্টের। যদি আমরা ফাইনাল খেলা ও শিরোপা জয়ের জন্য ভাবি, তবে নেতিবাচক কিছুই ভাবা যাবে না। যদি আমরা নিজেদের দ্বিতীয় রাউন্ডে দেখতে চাই তবে অবশ্যই আমাদের প্রথম রাউন্ডের অন্তত দুটি ম্যাচ জিততে হবে। তাই প্রথম দুই ম্যাচই আমাদের জন্য সবচেয়ে বেশি গুরুত্বপূর্ণ। এরপরই ফাইনাল ও শিরোপা ভাবনায় আসবে।’
দুটি গ্রুপে ভাগ হয়ে ৬টি দল খেলবে এবারের এশিয়া কাপে। গ্রুপ ‘এ’ তে আছে ভারত, পাকিস্তান ও কোয়ালিফায়ার রাউন্ডের বিজয়ী। গ্রুপ ‘বি’ বাংলাদেশ ছাড়াও আছে শ্রীলঙ্কা ও আফগানিস্তান। টুর্নামেন্টের প্রথম দিনেই শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে মাঠে নামবে মাশরাফি বিন মর্তুজার দল। এরপর ২০ সেপ্টেম্বর আফগানিস্তানের মুখোমুখি হবে টাইগাররা। তামিমের মতে, এ দুটি ম্যাচের দিকেই আপাতত মনযোগ রয়েছে বাংলাদেশ দলের, দুটি দলই কঠিন প্রতিপক্ষ হবে।
তামিম বলেন, ‘এশিয়া কাপ একটি বড় টুর্নামেন্ট। সব প্রতিপক্ষই তাদের সেরাটা দেওয়ার জন্য তৈরি থাকে। শ্রীলঙ্কা ও আফগানিস্তানও পরের রাউন্ডে ওঠার জন্য তাদের সেরাটাই দেবে। ব্যাট করার জন্য তারা কঠিন প্রতিপক্ষ। তাই আমাদের দায়িত্ব আমাদের সেরাটা দিতেই মাঠে নামা।’
‘এশিয়া কাপে এমন কোনো দল নেই যারা আগে খেলেনি। আমরাও সবার বিপক্ষেই খেলেছি এবং আমাদের দিনে আমরা তাদের হারিয়েছিও। আশা করি আমরা আমাদের শক্তি অনুযায়ী খেলতে পারবো এবং এই এশিয়া কাপ স্মরণীয় করে রাখতে পারব।’
২০১২ ও ২০১৬ সালে ফাইনাল খেলার স্মরণীয় অভিজ্ঞতা রয়েছে বাংলাদেশের। যদিও পাকিস্তান ও ভারতের বিপক্ষে হেরে শিরোপা তুলে ধরা হয়নি।
এশিয়া কাপ খেলার জন্য কোয়ালিফাই রাইন্ডের খেলা শুরু হবে আগস্টের ২৯ তারিখে। এখানে অংশ নেবে মালয়শিয়া, সংযুক্ত আরব আমিরাত, সিঙ্গাপুর, নেপাল, ওমান ও হংকং। এখান থেকে জয়ী দল খেলবে ভারত-পাকিস্তানের সঙ্গে এশিয়া কাপের একই গ্রুপে।

SHARE THIS NEWS

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*

Scroll To Top