নড়াইলের ‘শেখ রাসেল সেতুর উদ্বোধন করলেন প্রধানমন্ত্রী

নড়াইলের ‘শেখ রাসেল সেতুর উদ্বোধন করলেন প্রধানমন্ত্রী

নড়াইল প্রতিনিধি
নড়াইলে চিত্রা নদীর ওপর নির্মিত ‘শেখ রাসেল সেতু’র উদ্বোধন করলেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। বৃহস্পতিবার সকাল সাড়ে ১১টায় প্রধানমন্ত্রী গণভবন থেকে ভিডিও কনফারেন্সের মাধ্যমে সেতুটির উদ্বোধন করেন।
জেলাপ্রশাসক বেগম আঞ্জুমান আরার সভাপতিত্বে উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে নড়াইল-২ সংসদ সদস্য অ্যাডঃ শেখ হাফিজুর রহমান, জেলা পরিষদের চেয়ারম্যান অ্যাডঃ সোহরাব হোসেন বিশ্বাস, পুলিশ সুপার মোহাম্মদ জসিম উদ্দিন পিপিএম, জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি অ্যাডঃ সুবাস চন্দ্র বোস, সাধারণ সম্পাদক নিজামউদ্দিন খান নিলু, সরকারি কর্মকর্তা, মুক্তিযোদ্ধা, রাজনীতিবিদ, সাংবাদিক, আইনজীবী, শিক্ষকসহ সুশীল সমাজের প্রতিনিধিরা এ সময় উপস্থিত ছিলেন।
নড়াইল শহরের প্রাণকেন্দ্র সাবেক ফেরীঘাটে একটি সেতু নির্মাণের দাবি ছিল দীর্ঘদিনের। সেতুর দাবিতে মানববন্ধন, গণসাক্ষর কর্মসূচিসহ অনেক আন্দোলন সংগ্রাম হয়েছে। গণমানুষের দাবির প্রেক্ষিতে প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশে স্থানীয় সরকার প্রকৌশল অধিদপ্তর (এলজিইডি) তত্ত্বাবধানে ২৯ কোটি ১১ লাখ টাকা ব্যয়ে ২০১৫ সালের ৩০ এপ্রিল সেতুটির নির্মাণ কাজ শুরু হয়।
১৪১ মিটার দৈর্ঘ্য মূল সেতুর বাইরে দু’পাশে ফ্লাইওভারের মতো দেখতে ভায়াডাক্টের দৈর্ঘ্য ২৩৮ মিটার। সেতুর প্রস্থ ১৮ ফুট। দুই পাশে অ্যাপ্রোচ সড়ক আছে ৪৩১ মিটার।
ঢাকার ঠিকাদারি প্রতিষ্ঠান মেসার্স এমবিইএল-ইউডিসি (জেভি) সেতুটি নির্মাণ কাজ করেছেন।
সেতুটি নির্মাণ কাজের সময়সীমা ২০১৭ সালের জুন পর্যন্ত থাকলেও নির্ধারিত সময়ের তিনমাস আগেই নির্মাণ কাজ শেষ হয়। তবে জনগণের চলাচলের সুবিধার্থে ২০১৭ সালের ২৬ মার্চ থেকেই চলাচল শুরু হয়।
কালিয়া উপজেলার চাঁচড়ী বাজারের ব্যবসায়ী আফজাল হোসেন ও ওমর ফারুক জানান, সেতুটি নির্মাণের মাধ্যমে এক আমূল পরিবর্তন হয়েছে। দৃষ্টিনন্দন সেতুটি এখন বিনোদন কেন্দ্রে পরিণত হয়েছে। প্রতিদিন বিকেলে অসংখ্য মানুষ সময় কাটানোর জন্য আসেন। তাছাড়া রোগী পরিবহণ, কৃষকদের উৎপাদিত ফসলসহ জেলা শহরে চলাচল খুবই সহজ হয়েছে। সেতুটি নির্মাণের জন্য নড়াইলবাসীর পক্ষ থেকে মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর প্রতি আন্তরিক কৃতজ্ঞতা ও ধন্যবাদ জানাই।
জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি সাবেক জেলা পরিষদের প্রশাসক অ্যাডঃ সুবাস চন্দ্র বোস জানান, তিনি জেলা পরিষদের প্রশাসক থাকাকালীন সময়ে সেতুটি নির্মাণের জন্য কাজ চালিয়ে যান। সেতুটি নির্মাণ হওয়ায় তিনি নড়াইল জেলাবাসীর পক্ষ থেকে মাননীয় প্রধানমন্ত্রীকে ধন্যবাদ জানিয়ে অবহেলিত জেলার উন্নয়নে প্রধানমন্ত্রীর আন্তরিক সহযোগিতা কামনা করেন।
স্থানীয় সরকার বিভাগ এলজিইডির নির্বাহী প্রকৌশলী বিধান চন্দ্র সমাদ্দার বলেন, চিত্রা নদীর ওপর নির্মিত শেখ রাসেল সেতুটি মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর উদ্বোধনের মধ্যদিয়ে নড়াইলবাসীর দীর্ঘদিনের একটি দাবি পূরণ হতে চলেছে। এই সেতু নির্মাণের ফলে শুধু নড়াইল জেলা নয়, পার্শ্ববর্তী জেলার লাখ লাখ মানুষ উপকৃত হবে। যশোর, সাতক্ষীরাসহ পার্শ¦বর্তী জেলার মানুষ এই সেতুর ওপর দিয়ে ভাটিয়াপাড়া, মাওয়া সড়ক দিয়ে খুব দ্রুত সময়ে রাজধানীতে পৌঁছাতে পারবেন।

SHARE THIS NEWS

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*

Scroll To Top