Breaking News
Home / স্থানীয় সংবাদ / হিজড়া জনগোষ্ঠীর অধিকার সুরক্ষায় করণীয় নির্ধারণে সভা

হিজড়া জনগোষ্ঠীর অধিকার সুরক্ষায় করণীয় নির্ধারণে সভা

স্টাফ রিপোর্টার
হিজড়া জনগোষ্ঠীর অধিকার সুরক্ষায় করণীয় নির্ধারনে মতবিনিময় সভায় বক্তারা বলেন, হিজড়াদের ব্যাপারে সর্বপ্রথম পারিবারিকভাবে দৃষ্টিভঙ্গিতে পরিবর্তন আনতে হবে। এরপর সমাজের পরিবর্তন আনা জরুরি। তাদেরকে মর্যাদাশীল মানুষ হিসেবে সমাজে প্রতিষ্ঠিত হতে হবে। ফিরিয়ে আনতে হবে মূল ¯্রােতে। তবেই তারা সমাজে বোঝা না হয়ে সম্পদে পরিণত হবে।
গতকাল সকালে স্থানীয় একটি অভিজাত হোটেলে ব্লাস্ট খুলনা ইউনিট কর্তৃক আয়োজিত সভায় অংশগ্রহণকারীরা এ সব অভিমত ব্যক্ত করেন। সভায় সভাপতিত্ব করেন ব্লাস্ট ম্যানেজম্যান্ট কমিটির সভাপতি অ্যাড. কাজী বাদশা মিয়া, অতিথি ছিলেন বন্ধু সোশ্যাল ওয়েলফেয়ার সোসাইটির নির্বাহী পরিচালক সালেহ আহমেদ, ব্লাস্টের উপদেষ্টা অ্যাড. তাজুল ইসলাম, দুনীতি দমন কমিশনের বিভাগীয় পরিচালক নাসিম আনোয়ার, সমাজসেবা অধিদপ্তরের উপ-পরিচালক খান মোতাহার হোসেন, যুব উন্নয়ন অধিদপ্তরের মাহফুজুর রহমান। ব্লাস্ট খুলনা ইউনিটের সমন্বয়কারী অ্যাড. অশোক কুমার সাহার সঞ্চালনায় সভায় অন্যান্যের মধ্যে বক্তৃতা করেন ছিন্নমূল মানব কল্যাণ সোসাইটির প্রধান নির্বাহী আবুল হোসেন, পুলিশ পরিদর্শক ফারজানা, সুজনের খলিলুর রহমান সুমন, পাখি হিজড়া, হিজড়া শোভা সরকার, লোসাউকের পারভীন আক্তার প্রমুখ। সভায় লিঙ্গ বৈচিত্রময় জনগোষ্ঠী এবং সরকারি ও বেসরকারি বিভিন্ন প্রতিষ্ঠানের মধ্যে সমন্বয় সাধন করে তাদের অধিকার প্রতিষ্ঠায় কাজ করার দৃঢ় প্রত্যয় ব্যক্ত করা হয়।
সভায় বক্তারা বলেন, ২০১৩ সালের নভেম্বর মাসে সরকার হিজড়াদের তৃতীয় লিঙ্গ হিসেবে স্বীকৃতি দেয়। কিন্তু সেখানে তৃতীয় লিঙ্গের সংজ্ঞা পরিষ্কার করে না বলায় সংশ্লিষ্টদের ভোগান্তি পোহাতে হচ্ছে। এছাড়া জাতীয় জরিপে হিজড়াদের আলাদাভাবে সনাক্তকরণ করা হয়নি। এ জন্য দেশে কত হিজড়া আছে তার পরিসংখ্যান নেই। এমন কি আইনে তৃতীয় লিঙ্গ সংযুক্ত না থাকায় তারা আইনী সেবা থেকেও হচ্ছে বঞ্চিত। এসব বিষয়গুলো সমাধানের জন্য সরকারের কাছে বক্তারা জোর দাবি জানান।

Spread the love

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*